Wednesday, May 31, 2017

ছাত্রনেতা এম এ গাফফার কে নিয়ে ছাত্রনেতা সোহেল আরমানের কিছু কথা

সোহেল আরমানঃ স্বশ্রদ্ধ সালাম প্রিয় ছাত্রনেতা  এম এ গাফফার।  আজিমপুরে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৩৬তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে এম এ গাফফারের উদ্যোগে গরীব-দু:স্থদের মাঝে খাদ্য ও বস্ত্র বিতরণ করেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া।

এখানে ঢাকা শহরের সবচেয়ে বেশি নেতা-কর্মীদের ঢল ছিল। আপনাকে হাজার স্যালুট জানাচ্ছি শ্রদ্ধেয় প্রিয় নেতা। কারণ আপনি এখনো পুরোপুরিভাবে সুস্থ্য না হয়ে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে হেঁটে আবারো রাজপথে।আপনার অক্লান্ত পরিশ্রমে আজকের প্রোগ্রামটি সবচেয়ে সুন্দর ও সফলভাবে শেষ হয়েছে। নিজের চিন্তা না করে দলীয় কর্মকাণ্ডকে প্রাধান্য দিলেন।

জীবনের ঝুঁকি নেওয়া একমাত্র আপনার পক্ষেই সম্ভব।দলের প্রতি আপনার ত্যাগ,ভালোবাসা আমাদের মনে সকল অপশক্তির বিরুদ্ধে শক্তির সঞ্চার করে।আপনার এই বীরত্বপূর্ণ মনোভাব গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনের পথকে সুগম করবে। এটাই জিয়া পরিবার, খালেদা জিয়া, তারেক রহমান ও দলের প্রতি আপনার নিরন্তর ভালোবাসা।

 অাপনার দলের প্রতি এই ভালোবাসা অামার মতো অাপনার সহ কর্মীদের সাহস অনেক গুন বেড়ে যাবে, যতো দিন থাকবো অাপনার মতো বুকে সাহস অার মনোবল নিয়ে চলবো। দোয়া করি অাপনে সামনে দিকে এগিয়ে যান এবং অামাদের জন্য দোয়া করবেন। অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই বিএনপি'র নির্বাহী কমিটির অন্যতম প্রভাবশালী ভাইস প্রেসিডেন্ট আব্দুল্লাহ আল নোমান,সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ,যুবদল কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি সাইফুল আলম নীরব,সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু,মহিলা দলের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদ ঢাকা মহানগর দহ্মিন বি এন পির সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেল, সাধারন সম্পাদক কাজী আবুল বাশার, ঢাকা সাত আসনের নেত্রী নাসিমা আক্তার কল্পনা,  ছাত্রদলের সভাপতি রাজীব আহসান, সাধারন সম্পাদক একরামুল হাসান মিন্টু, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রদলের সভাপতি জহির উদ্দীন তুহিন, সহ সভাপতি মোস্তাক আহম্মেদ,যুগ্ন সম্পাদক মুকিত,দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিশেষ সহকারী শিমুল বিশ্বাস,দেশনেত্রীর নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা (সিএসএফ)এর প্রধান সমন্বয়ক কর্নেল তৌহিদ হোসেন সহ উপস্থিত ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রদলের আওতাধীন সকল থানা  এবং সকল কলেজ শাখার নেতৃবৃন্দকে।এইসময় শহীদ নাসির উদ্দীন আহম্মেদ পিন্টুর কবর জিয়ারত করেন ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দ।


শেয়ার করুন

0 comments: